দৈনন্দিন কাজে আমাদের প্রায় ই বাইকের প্যাসেঞ্জার সিটে বসতে হয়।আর এই ক্ষেত্রে আমাদের সেফটি
নিয়ে বরাবরই উদাসীন থাকি,যেখানে সেফটি ই হওয়া উচিত আমাদের প্রথম এবং প্রধান ইস্যু।চলুন বাইকের
প্যাসেঞ্জার সেফটি নিয়ে কিছু টিপস আর ফ্যাক্ট দেখে আসি আজ-

১.প্যাসেঞ্জার সিটে বসা আপনার প্রথমেই যেটা দরকার তা হচ্ছে হেলমেট।শুধু হেলমেট নয়,একটি ভালো
হেলমেট।আমরা পিলিয়ন সিটে বেশির ভাগই হেলমেট ব্যবহার করি না আর যারা করি সেই হেলমেট পড়ে
গেলে কতটুক সেফটি দিবে সেটা প্রশ্নসাপেক্ষ্য।তবুও নাই মামার চেয়ে কানা মামা ভালো,দূরে কাছে যেখানেই
যাই,অন্তত জরিমানা থেকে বাচার জন্য হলেও হেলমেট ব্যবহার করা উচিত।

২.হেলমেট এর পর যা আসে তা হচ্ছে জ্যাকেট,লেদার বা রাইডিং জ্যাকেট।দুটোর দাম ই আমাদের দেশে
আকাশচুম্বী,তাই আর কিছু না হলেও অন্তত ফুলহাতা শার্ট,টি শার্ট পড়া উচিত।

৩.পায়ের বুট।প্রথমে বুট ব্যবহার করা উচিত,তা না হলে স্পোর্টস কেডস বা কনভার্স ব্যবহার বাধ্যতামূলক।

৪.ফুল প্যান্ট,আমরা রাইডিং প্যান্ট না পড়লেও অন্তত ফুল জিন্স প্যান্ট যেন পড়ি।

৫.লেদার গ্লাভস বা ফুল প্রটেকটেড গ্লাভস ব্যবহার বেস্ট,না হলে অন্তত নরমাল বাইক রাইডিং গ্লাভস ব্যবহার
করা উচিত।

৬.খুব লম্বা ফিতাযুক্ত কোনো কিছু বা বড় ব্যাগ টাইপ জিনিস এড়িয়ে চলা উচিত।সম্ভাবনা থাকে এগুলোর স্ট্র্যাপ
বাইকের চাকার সাথে আটকে দূর্ঘটনা ঘটাবে।

৭.বাইকে বসা অবস্থায় কোনো মতেই এদিক সেদিক হেলে যাওয়া,নড়াচড়া করা উচিত নয়।কর্নারিং এর সময়
বাইক যেদিকে মোড় নিচ্ছে,শরীরের নিচের অংশ বাইকের সাথে সেটে উপরের অংশ বাইকের সাথে একই দিকে
ঘুরাতে হবে,যেন আপনি আর বাইক দুজন দুদিকে মোড় না নেন।এতে বাইকের চালকের ম্যাক্সিমাম কন্ট্রোল থাকে
বাইকের উপর।

৮.খেয়াল রাখতে হবে পা যেন সবসময় ফুট রেস্টে থাকে,চাকায় বা ইঞ্জিনে যেন না লেগে যায়।

৯.স্পোর্টস বাইক বা বাইক অনেক স্পিডে থাকলে পিলিয়ন এর উচিত তার দুই হাত দিয়ে চালকের পেটের
দিক জড়িয়ে রাখা অথবা দুই হাত চালকের দুই পাশ থেকে নিয়ে বাইকের ট্যাঙ্কে ধরা রাখা।এতে চালকের
কন্ট্রোল আর পিলিয়ন এর সেফটি আর কম্ফোর্ট দুইটাই নিশ্চিত হয়।

সর্বোপরি দূর্ঘটনা কখন ঘটে যায় তা বলা যায় না।আমাদের বাইকে চলার সময় সতর্ক থাকা উচিত সবসময়।
বাইক দূর্ঘটনা গুলো ছোটখাট জখম থেকে শুরু করে প্রায়শই মারাত্মক হয়ে থাকে।নিজের সুরক্ষার জন্য একটু
নিয়ম আর সাবধানতা অবলম্বন করলেই আমরা অনেক নিরাপদ থাকতে পারি,বাকিটা আল্লাহ ভরসা।